করােনা সংক্রান্ত তথ্য

উপভোগ করুন সকল নাগরিক সেবা, সাথে মেনে চলুন স্বাস্থ্যবিধি

কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যেও নাগরিকগণ সরকারি-বেসরকারি অফিস কিংবা আদালতে সেবা নিচ্ছেন। জরুরি প্রয়োজনে, মাঝে মাঝে কম লোকবল নিয়ে অফিস চালানোর বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হলেও নাগরিকদের জন্য সেবাপ্রদানে তা বাধা হচ্ছে না। শুধু এক্ষেত্রে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

আপনিও সব ধরনের সেবা নিতে পারবেন। তবে, সকলের নিরাপত্তার স্বার্থে সেবাগ্রহণ করতে গেলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার চেষ্টা করুন। আসুন জেনে নিই, আমরা এক্ষেত্রে কী কী করতে পারি।

অনলাইন সেবা নিন:

অনলাইনে করতে পারলে, কাজ অনলাইনে সারুন। এরপরও প্রয়োজন হলে অফিসমুখী হোন।

নিশ্চিত হোন আপনি আক্রান্ত নন:

সেবা গ্রহণ করতে যাওয়ার আগে নিশ্চিত হোন, আপনার মধ্যে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। করোনা আক্রান্ত কারো সংস্পর্শে গত দুয়েকদিনের মধ্যে এলে উপসর্গ আছে কি না লক্ষ্য করুন।

মাস্ক পরুন সবসময়:

সরকারি-বেসরকারি অফিসে সেবা নিতে গেলে সার্বক্ষণিক মাস্ক পরিধান করুন। মাস্ক পরার মাধ্যমে হাঁচি-কাশি না ছড়াতে দিয়ে সফলভাবে করোনা প্রতিরোধ সম্ভব।

সুরক্ষা উপকরণ ব্যবহার করুন:

হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন। সাবান দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা থাকলে হাত ধুয়ে ফেলুন।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, সিরিয়াল মেনে সেবা নিন:

হুড়োহুড়ি কিংবা জটলা পরিহার করুন। অনেক অফিসে শারীরিক দূরত্ব মেনে লাইনে দাঁড়ানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। আপনিও শারীরিক দূরত্ব মেনে লাইনে দাঁড়ান। সম্ভব হলে, অন্যদের থেকে অন্তত দুই হাত দূরত্ব বজায় রাখুন।

লিফট এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন: 

লিফটের বদ্ধ পরিবেশে করোনা সহজে ছড়িয়ে পড়তে পারে। তাই লিফট এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। বেশি প্রয়োজন না হলে সিঁড়ি ব্যবহার করুন।

ঘরে ফেরার পর:

  • ঘরে ঢুকেই হাত যে-কোনো সাবান দিয়ে অন্তত বিশ সেকেন্ড ধুয়ে নিন।
  • ব্যবহৃত মাস্ক, গ্লাভস, ডিসপোজিবল ক্যাপ বা গাউন দরজার বাইরে রাখা বিনে ফেলে ঘরে প্রবেশ করুন।
  • জামাকাপড় আলাদা বালতিতে ভিজিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.