করােনা সংক্রান্ত তথ্য

কোভিড টাং: কী এবং কেন?

কোভিড-১৯-এর সাধারণ উপসর্গগুলোর ভিতরে ছিল জ্বর, দুর্বলতা এবং শ্বাসকষ্ট।

কিন্তু যত দিন যাচ্ছে কোভিড-১৯-এর নতুন নতুন সব ভ্যারিয়েন্ট আসছে এবং সাথে সাথে নতুন সব উপসর্গের কথা জানা যাচ্ছে, এর মধ্যে আছে একটি বিরল উপসর্গ আছে যেটাকে নাম দেওয়া হয়েছে কোভিড টাং

কোভিড টাং রোগীদের জিহ্বার উপরিভাগে সাদা সাদা ছোপ ছোপ দেখা যায় বা জিহ্বা লাল হয়ে ফুলে যায়। কারো কারো ক্ষেত্রে জিহ্বার মাঝে ছোটো ছোটো স্ফীতি বা ক্ষতস্থানও দেখা যেতে পারে। এসবের বাইরে, কোভিড টাং-এ আক্রান্ত ব্যক্তির অনেকেই মুখে কোনো স্বাদ পান না এবং মুখের ভিতর জ্বালাপোড়া করে। ফলে তিনি খাওয়া-দাওয়া ঠিকমতন করতে না পেরে আরো বেশি দুর্বল হয়ে পড়েন।

২০২১ সালের এক গবেষণায় নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে যে কোভিড টাং কোভিড-১৯-এরই একটি উপসর্গ। কিন্তু কোভিড-১৯ সংক্রান্ত আরও অনেক ব্যাপারের মতোই, এটা সম্পর্কেও আমরা খুব বেশি কিছু জানি না।

চিকিৎসা:

কোভিট টাং-এর জন্য আলাদা করে চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না আসলে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কোভিডের জন্য যে চিকিৎসা চলছে সেটাতেই কাজ হয়ে যায়।

তবে কোভিড টাং যদি খুব বেশি মারাত্মক হয়ে যায় এবং আনুষঙ্গিক চিকিৎসায় ভালো না হয়, তাহলে আলাদা করে চিকিৎসা লাগতে পারে। সেক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

কোভিড রোগীর জিহ্বা যদি অতিরিক্ত ফুলে যায় এবং দম আটকে আসার অবস্থা হয় তাহলে দেরি না করে দ্রুত হাসপাতালে নিতে হবে।

বর্তমানে কোভিড টাং সম্পর্কে অনেক প্রশ্নের উত্তরই আমাদের অজানা। তাই কারো যদি এ ধরনের লক্ষণ দেখা দেয় তবে দ্রুত ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করাটাই ভালো।

তথ্যসুত্র: https://www.healthline.com/health/infection/covid-tongue

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.