শিশুর যত্ন ও বেড়ে উঠা

ঘরবন্দি অবস্থায় অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশুদের নিরাপত্তা কীভাবে দেবেন 

ঘরবন্দি অবস্থা এবং অন্যান্য কারণে অন্য সবার মতো বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের দৈনন্দিন রুটিন এলোমেলো হয়ে যাবে। এটি তাকে উদ্বিগ্ন আর অস্থির করবে। তাই তাদের দিকে বাড়তি মনোযোগ দিতে হবে। করোনাকালে অটিজমের বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশুদের যত্নে অভিভাবকদের জন্য বেশকিছু পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ফর চাইল্ড অ্যান্ড অ্যাডোলেসেন্ট মেন্টাল হেল্থ (বিএসিএএমএইচ)। চলুন জেনে নিই, ঘরবন্দি অবস্থায় অটিজমের বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশুদের যত্নে বাবা-মা বা অভিভাবকরা কী কী করবেন।

>>  শিশুর সব ধরনের শারীরিক নিরাপত্তার দিকে গুরুত্ব দিন।

>> শিশু যদি কোনো ধরনের অ্যাসিসটিভ (সহায়ক উপকরণ) ব্যবহার করে যেমন হুইল চেয়ার, চশমা, লাঠি ইত্যাদিকে জীবাণুমুক্ত রাখুন।

>> পরিবারের কোনো সদস্যের মধ্যে কোভিড-১৯-এর উপসর্গ দেখা দিলে তাকে শিশু থেকে অবশ্যই দূরে আলাদা ঘরে থাকতে বলুন।

>> ঘরবন্দি থাকাকালীন সময়ে শিশুর সাথে ঘরোয়া খেলা খেলুন। পুরো সপ্তাহের জন্য একটি পারিবারিক রুটিন তৈরি করুন। রুটিন তৈরি ও তা পালনে অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন শিশুর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করুন।

>> ঘরবন্দি থাকাকালীন, নিয়ম করে শিশুকে দিনের বেলা ঘরের বারান্দা বা জানানার কাছে বসতে উৎসাহিত করুন।

>> শিশুকে মুঠোফোনে, টিভিতে বা ছবি এঁকে প্রতিরক্ষামূলক পোশাক (পিপিই) পরা স্বাস্থ্যকর্মীর ছবি দেখান। যাতে কোনো জরুরি প্রয়োজনে এই ধরনের স্বাস্থ্যকর্মীর সান্নিধ্যে যেতে হলে শিশু ভীত হয়ে না পড়ে।

>>  শিশুর আচরণের পরিবর্তনগুলো মনোযোগ দিয়ে লক্ষ করুন। শিশু হঠাৎ রেগে গেলে, কান্নাকাটি করলে, বিছানায় প্রস্রাব বন্ধ হওয়ার পর আবার শুরু হলে, ঘুমের মধ্যে চিৎকার করে উঠলে, মা-বাবাকে আঁকড়ে ধরে থাকতে চাইলে, অন্য কোনো আচরণের হঠাৎ পবিবর্তন হলে সতর্ক হোন।

>> শিশুর অভিভাবক বা বাবা-মা নিজেরা নিজেদের মানসিক চাপ মোকাবেলা করুন। শ্বাসের ব্যায়াম, রিলাক্সেশন, মেডিটেশন চর্চা করুন। পরিমিত ঘুমান। অযথা রাত জাগবেন না। বিশেষ শিশুর যত্ন নিশ্চিত করতে হলে সবার আগে নিজের শরীর ও মনের যত্ন নিন।

তথ্যসূত্র:

https://old.dghs.gov.bd/images/docs/Notice/08_04_2020_Bacamh%20autism.pdf

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.