মানসিক স্বাস্থ্য

করোনা পরবর্তী অবসাদ: মনোবিদ বা মনোচিকিৎসকের শরণাপন্ন কখন হবেন?

করোনা মহামারির মাঝে মানসিক অবসাদগ্রস্ত হওয়াটা কোনো অস্বাভাবিক বিষয় নয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যমতে, করোনা পরবর্তী জীবনে বিশ্বের প্রায় ২৬ কোটি মানুষ অবসাদে ভুগছেন।

অবসাদ ব্যক্তিগত পর্যায় থেকে নিয়ন্ত্রিত না হয়ে গুরুতর হলে মনোবিদ আর মনোচিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া যেতে পারে। এতে লজ্জা বা দ্বিধার কিছু নেই। আমাদের শরীর খারাপ হলে বা রোগাক্রান্ত হলে যেমন আমরা ডাক্তারের শরণাপন্ন হই, তেমনিই মানসিক যে-কোনো সমস্যাতেই মানসিক ডাক্তার বা মনোবিদের কাছে যাওয়া একেবারেই স্বাভাবিক বিষয়। অন্যান্য ডাক্তারের মতই মনোবিদ বা মনোচিকিৎসকেরাও ওষুধের প্রয়োগ এবং সাইকোথেরাপির মাধ্যমে (পৃথকভাবে কিংবা একইসাথে) মানসিক অবসাদের চিকিৎসা করে থাকেন।

ওষুধের মাধ্যমে চিকিৎসার পাশাপাশি কগনিটিভ বিহ্যাভিওরাল থেরাপি, ফ্যামিলি থেরাপি আর ইন্টারপার্সোনাল থেরাপি দিয়ে থাকেন থেরাপিস্টরা।

নিচের কারণগুলোর কোনোটি আপনার মধ্যে প্রকট হলে মনোবিদ বা মনোচিকিৎসকের শরণান্ন হতে পারেন–

  • অনবরত দুঃখ ও শূন্যতা অনুভব করলে,
  • স্বাভাবিকের চেয়ে অতি কম বা অতি বেশি মাত্রার ঘুম হলে,
  • স্বাভাবিকের চেয়ে অতি কম বা অতি বেশি মাত্রায় খাওয়ার প্রবণতা দেখা দিলে,
  • অকারণে উত্তেজিত হয়ে পড়লে,
  • শারীরিক শক্তির অভাব প্রবলভাবে অনুভব করলে,
  • অতিমাত্রায় বিরক্ত ও হতাশ বোধ করলে,
  • আগে যে কাজে আনন্দ পেতেন, এখন তাতে পুরোপুরি আগ্রহ হারিয়ে ফেললে,
  • মনোসংযোগে বেশিমাত্রায় অসাড়তা দেখা দিলে,
  • আত্মহত্যার চিন্তা মাথায় ঘুরতে থাকলে।

যেসব প্রতিষ্ঠানে মানসিক সমস্যার জন্য পরামর্শ নিতে পারেন–

  • স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য বাতায়ন নম্বর–১৬২৬৩
  • ব্র্যাক, সাইকোলজিক্যাল হেলথ অ্যান্ড ওয়েলনেস ক্লিনিক (পিএইচডব্লিউসি) এবং মানসিক সহায়তা হেল্পলাইন কান পেতে রই-এর টেলিকাউন্সেলিং প্ল্যাটফর্ম নম্বর–০১৭০৯-৮১৭১৭৯, প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত।
  • বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মনঃসামাজিক সহায়তা সেল নম্বর–০১৮১১৪৫৮৫৪১, ০১৮১১৪৫৮৫৪২, রোববার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.