গর্ভকালীন সমস্যা ও স্ত্রী রোগ

গর্ভাবস্থার প্রতি সপ্তাহ: সপ্তাহ ৩১

আপনি এখন আপনার গর্ভাবস্থার ৭ম মাসে অবস্থান করছেন৷ এই সময়ে শিশুর চোখের পিউপিল বড়ো হতে থাকে৷ সে তার মাথাকে একপাশ থেকে আরেকপাশে ঘুরাতে পারে৷ 

এ সময়ে আপনার কী কী করণীয় এবং আপনার শরীরে কী কী পরিবর্তন আসবে, চলুন তা জেনে নেই।

লক্ষণসমূহ: 

  • পেটে টান পড়ার মতো অনুভূতি হয়৷ গর্ভাশয়ের পেশিগুলোর সংকোচনের ফলে এমন বোধ হতে পারে৷ এই টান ৩০ সেকেন্ডের মতো স্থায়ী হতে পারে। সাধারণত এটি অনিয়মিতভাবে হয় এবং ব্যথাহীন থাকে৷ একে মেডিকেলের ভাষায় ব্র‍্যাক্সটন হিকস সংকোচন বলা হয়৷ 
  • স্তন থেকে তরল নিঃসরণ হতে পারে৷ একে কলোস্ট্রাম বা শালদুধ বলা হয়।
  • পিঠে বা কোমরে ব্যথা হতে পারে।
  • ঘুমের সমস্যা হওয়া।
  • পেটে ব্যথা।
  • পেটে ফাটা দাগের মতো হওয়া।
  • অস্বস্তিবোধ।
  • মাথা ঘুরানো বা ব্যথা হওয়া।
  • যোনিপথে জ্বালাপোড়া বা সংক্রমণ।
  • উচ্চ রক্তচাপ দেখা যেতে পারে।  

প্রেগন্যান্সি চেকলিস্ট: 

  • উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকলে এটা প্রি-এক্লেম্পশিয়ার লক্ষণ হতে পারে যা মা ও সন্তানের মৃত্যু পর্যন্ত ঘটাতে পারে৷ তাই দয়া করে অবহেলা না করে চিকিৎসককে জানান৷
  • নিয়মিত হালকা ব্যায়াম করা যেতে পারে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে৷ 
  • ভারী কাজ করা থেকে বিরত থাকার চেষ্টা করুন৷ 
  • চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এই সময়ে ম্যাটারনিটি বেল্ট পরা যেতে পারে৷ 
  • ব্রাক্সটন হিকস সংকোচন-এ সাধারণত ব্যথা হয় না৷ তবে যদি ব্যথা হয় তবে দ্রুত সেটা চিকিৎসককে জানান৷ এটি নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই প্রসব বেদনা শুরু হবার লক্ষণ হতে পারে৷ 

https://www.babycenter.com/pregnancy/week-by-week/31-weeks-pregnant

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.