গর্ভকালীন সমস্যা ও স্ত্রী রোগ

গর্ভাবস্থার প্রতি সপ্তাহ: সপ্তাহ ১৩

এই পর্যায়ে এসে আপনি একটু ভালো বোধ করবেন৷ গর্ভাশয়ের আকার বাড়ার সাথে সাথে পেটের আকারও বাড়তে থাকে৷ যাকে ইংরেজিতে baby bump বলে৷

এ সময়ে আপনার কী কী করণীয় এবং আপনার শরীরে কী কী পরিবর্তন আসবে, চলুন তা জেনে নেই।

লক্ষণসমূহ:

  • গর্ভকালীন সময়ে পেশিতে মাঝে মাঝে টান লাগা বা পেটে মোচড় মারা একটা স্বাভাবিক ঘটনা৷ তবে এটা সবসময় চলতে থাকাটা ভালো কিছু না। কয়েক মিনিট বিশ্রামের পরও যদি সমস্যা না যায়, ব্যথা আরো তীব্রতর হয় তবে আপনার চিকিৎসককে এ বিষয়ে জানান৷
  • খাবারের প্রতি রুচি আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে। 
  • নাক বন্ধ হয়ে থাকতে পারে৷
  • বুক, স্তন এবং পেটে নীল বর্ণের দৃশ্যমান শিরা দেখতে পাওয়া৷
  • সাদাস্রাব চলমান থাকে৷
  • দাঁতের মাড়ি ফুলে যাওয়া অথবা রক্ত পড়া৷
  • প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া৷
  • মাসিকের রাস্তা বা যোনিতে সংক্রমণ হতে পারে। সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি।

প্রেগন্যান্সি চেকলিস্ট:

  • এখন থেকে প্রতি ৪ সপ্তাহে অন্তত একবার চিকিৎসকের কাছে যাওয়া প্রয়োজন৷
  • স্বাস্থ্যকর খাবার খান।
  • গর্ভকালীন বিপদচিহ্নগুলো নিয়ে জানুন৷ যেমন–গর্ভকালীন ডায়াবেটিস, প্রি এক্লেম্পশিয়া ইত্যাদি৷ 
  • এ সময় “সাইড স্লিপিং” করা অর্থাৎ যেকোনো একপাশে ফিরে ঘুমানো ভালো। ফলে আপনার শিরাসমূহ এবং অভ্যন্তরীণ অঙ্গগুলোতে চাপ কম পড়ে৷
  • এই সময়ে যৌন সহবাসের প্রতি আগ্রহ বেড়ে যেতে পারে৷ এই সময়ে সহবাস সম্পূর্ণ নিরাপদ৷
  • দাঁড়ের মাড়ির যত্ন নিন।
  • পরিমিত খাবার এবং পানি পান করুন৷

https://www.babycenter.com/pregnancy/week-by-week/13-weeks-pregnant

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

সম্পর্কিত পোস্ট

আরও আরও...আর পাওয়া যায়নি.